অনলাইন ট্রেনের টিকেট বুকিং, মোবাইল দিয়ে ট্রেন টিকেট বুকিং

অনলাইন ট্রেনের টিকেট বুকিং, মোবাইল দিয়ে ট্রেন টিকেট বুকিং

আপনারা যারা মোবাইল ফোন দিয়ে ট্রেনের টিকিট বুকিং করতে চাচ্ছেন, তো সেই ক্ষেত্রে কি কি করতে হবে বা মোবাইল টিকিট বুকিং করার নিয়ম গুলো কি কি। এ সকল বিষয়ে জানতে  অনেকেই কিন্তু গুগলের মাধ্যমে সার্চ করে থাকেন।  তাহলে  অনুগ্রহপূর্বক এই পোস্টটি সম্পন্ন পড়ুন এবং মোবাইলে ট্রেন টিকিট বুকিং করার  সকল গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো  সম্পর্কে জেনে নিন।

মোবাইল ট্রেন টিকেট বুকিং

আপনারা যারা মোবাইলের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট  বুকিং করতে চাচ্ছেন, তাদের  জানতে হবে যে  মোবাইলের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট বুকিং করতে কি কি প্রয়োজন বা কি কি কাগজপত্র লাগে।  তো তাহলে চলুন আগে দেখে নেয়া যাক মোবাইলের মাধ্যমে ট্রেনের টিকেট বুকিং করতে কি কি ডকুমেন্টস বা কাগজপত্র লাগে।

মোবাইল টেনের টিকিট বুকিং করতে  অবশ্যই জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর, পার্সোনাল মোবাইল নম্বর ও জন্ম নিবন্ধন বা পাসপোর্ট রেজিস্ট্রেশন নম্বর।  এ সকল ডকুমেন্টস গুলো অবশ্যই থাকতে হবে। তাছাড়া কখনোই মোবাইলে টিকিট বুকিং করতে পারবেন না।  আপনারা কাউন্টারের মাধ্যমে  বা অনলাইনের মাধ্যমে  যে কোন জায়গায় টিকিট বুকিং করেন না কেন অবশ্যই আপনাদের এই কাগজপত্র গুলো থাকতে হবে।

টিকিট বুকিং এর আরো কিছু নিয়মকানুন রয়েছে যেমন  যাদের বয়স ১২ থেকে ১৮  এর মধ্যে  তাদের অবশ্যই  পিতা মাতার  জাতীয় পরিচয় পত্র  ডকুমেন্টস লাগবে। তো যাই হোক আপনারা এখন নিচ থেকে জেনে নিন কিভাবে মোবাইলে  ট্রেনের টিকিট বুকিং করা হয়।

অনলাইন ট্রেনের টিকেট বুকিং

আপনারা যদি মোবাইল দিয়ে অনলাইনের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট বুকিং করতে চান তাহলে আপনাদের কি করতে হবে।  অনেকেই আছেন যারা জানতে চান যে অনলাইনে কিভাবে ট্রেনের টিকিট বুকিং করতে হয়।  অনলাইনে ট্রেনের টিকিট বুকিং করতে প্রথমে https://eticket.railway.gov.bd এই ওয়েবসাইটটিতে ঢুকে রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে। এই ওয়েবসাইটটি হচ্ছে ট্রেন লাইনের  সরকারি একটি ওয়েবসাইট, এই ওয়েবসাইটটিতে ঢুকে আপনারা আপনাদের স্থানীয় জায়গা থেকে বাংলাদেশের যে কোন জায়গার বা ইন্ডিয়া  এবং নেপালের  সকল ধরনের ট্রেনের টিকিট কাটতে  পারবেন।  তবে আপনারা যদি সঠিক তথ্য দিয়ে  সকল খালিঘর গুলো পূরণ করতে পারেন তাহলে আশা করি আপনারা সহজে অনলাইনের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট বুকিং করতে  পারবেন।

ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস

ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস সম্পর্কে হয়তো আপনারা অনেকেই জানেন আবার হয়তো অনেকেই জানেন না। তো তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস দিয়ে খুব সহজেই ট্রেনের টিকিট বুকিং করা যায়।  অ্যাপের মাধ্যমে ট্রেনের টিকেট  বুকিং করার আগে জানতে হবে  অ্যাপসগুলোর নাম কি, এগুলোর নাম হচ্ছে  বিডি রেলওয়ে টিকিট, রেল সেবা ও বিডি  রেলওয়ে টিকিট এন্ড সিডিউল। তো তাহলে আপনারা দেখতেই পাচ্ছেন যে কোন কোন অ্যাপের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটা যায়।

তাহলে এখন  কিভাবে এই অ্যাপ গুলোর মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটবেন। উপরে যে অ্যাপ গুলো দেখতে পাচ্ছেন সেই প্রত্যেকটির যে কোন একটি অ্যাপ এর মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটতে পারবেন। তো তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক  কিভাবে এই অ্যাপ গুলোর মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটা যায়।

  • প্রথমে অ্যাপ ইন্সটল করে  অ্যাপ এ ঢুকে লগইন করে নিতে হবে।
  • তারপর নিজের নাম সম্পূর্ণ ইংরেজিতে লিখতে হবে।
  •  নিজের একটি ছবি তুলে অ্যাপে প্রোফাইল পিকচার হিসেবে দিতে হবে।
  • তারপর নিজের ইমেইল নাম্বার দিতে হবে।
  • তারপর নিজের একটি পার্সোনাল মোবাইল নাম্বার দিতে হবে এবং  মোবাইল নাম্বারে যাওয়া কোডটি পুনরায় লিখতে হবে।
  • জাতীয় পরিচয় পত্র বা এনআইডি কার্ডের নাম্বার  এবং জন্ম তারিখ দিতে হবে।
  • তারপর পোস্ট কোড লিখে সকল কাজ সম্পূর্ণ করে  অ্যাপের পাসওয়ার্ড দিতে হবে।
  • এবং সর্বশেষ  রেজিস্ট্রেশন অপশনে ক্লিক করে সকল কাজ সম্পন্ন করুন।