আবারও বাংলাদেশের ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তন নিয়ে পাপন-হাথুরুসিংহের দন্দ

ভারতে অনুষ্টিত ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তন নিয়ে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা হয়েছিল। পুরো আসরেই বাংলাদেশের ব্যাটিং অর্ডারের নিয়ে পরিক্ষা নিরিক্ষার মত পরিবর্তন করতে থাকে। মূলত মেহেদী হাসান মিরাজকে বিভিন্ন পজিশনে খেলাতে গিয়ে এমন পরিস্থিতির তৈরি করেছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। বারবার ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তন করায় নিজের পছন্দের পজিশনে ব্যাটিং করতে পারেননি বেশিরভাগ ব্যাটার। আর আবার ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে ছেড়ছাড় করতে চায় হাথুরু সিংহে।

হাথুরুসিংহে পক্ষে কথা বললেও পাপনের চোখে পরিবর্তনের সুযোগ নেই। রাজধানীর ইনডোর স্টেডিয়ামে হওয়া এক অনুষ্ঠানে ব্যাটিং অর্ডার কেমন হবে সেটার ধারণা দিয়ে পাপন বলেন, ‘ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তনের আমি কোনো সুযোগই দেখি না। কিভাবে করবে, আমি তো দেখি না। ওপেনিংয়ে তিনজনের মধ্যে দুজন খেলবে। কিন্তু কোন দুজন খেলব এটা আমি এখন বলতে পারছি না। তিনে শান্ত (নাজমুল হোসেন), চারে তাওহীদ হৃদয়, পাঁচে সাকিব, ছয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাতে অনিক (জাকের আলী) যদি আমরা সাত জন ব্যাটার খেলাই।’

সাত ব্যাটার নিয়ে খেললে সেক্ষেত্রে একাদশে থাকবেন চারজন বোলার। যেখানে এক স্পিনারের সঙ্গে তিন পেসারকে খেলানো হবে বলে নিশ্চিত করেছেন বোর্ড সভাপতি। তবে স্পিনার হিসেবে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে রিশাদ হোসেন নাকি শেখ মেহেদী খেলবেন সেটার নিশ্চয়তা দিতে পারেননি।

পাপন বলেন, ‘আটে স্পিনার আসবেন একজন। সেটা রিশাদ আসবে নাকি শেখ মেহেদী সেটা আমি জানি না। প্রতিপক্ষে দেখে ঠিক করবে। বাকি তিন পেসার খেলবে। এর মাঝে পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ বলে আমার মনে হয়।’

বিশ্বকাপ এলেই বাংলাদেশকে ঘিরে মানুষের প্রত্যাশা বেড়ে যায়। অন্যান্যদের মতো সমর্থক হিসেবে পাপনের চাওয়া বাংলাদেশের সব ম্যাচ জয়। তবে বোর্ড সভাপতি হিসেবে ভালো খেলায় চোখ পাপনের। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ক্রিকেট সমর্থক হিসেবে আশা করি বাংলাদেশ সব ম্যাচ জিতুক। আর বিসিবির সভাপরি হিসেবে আশা করি ভালো খেলুক।

Scroll to Top