সাকিবের দেখানো পথেই হাঁটলেন তামিম!

সাকিবের দেখানো পথেই হাঁটলেন তামিম!

সাকিব আল হাসানের পথেই হাটলেন তামিম ইকবাল। ফেনীতে গিয়ে এবার একটি শোরুম উদ্বোধন করেছেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক। এ সময় জাতীয় দলে ফেরা নিয়ে তার অবস্থান জানতে চাইলেও কৌশলে এড়িয়ে গেছেন বিষয়টি। তবে সাম্প্রতিক বিতর্কিত বিজ্ঞাপন ইস্যু নিয়ে সমালোচনার জবাব দিয়েছেন তামিম।

বিসিবি হেলিকপ্টার দেয়নি তাই বিপিএল ট্রফির ফটোসেশনে যাননি তামিম ইকবাল। দেশীয় একটি ক্লদিং ব্র্যান্ড সেই চাহিদা পূরণ করেছে, ফেনীতে পাখির ডানায় উড়ে গেলেন তামিম ইকবাল।

সাকিব আল হাসান শোরুম উদ্বোধন করেন তাই অনেকেই তাকে খোঁচা দিয়ে বলেন শোরুম আল হাসান! এবার কি তাহলে তামিম হেটার্সরা বলবেন শোরুম ইকবাল খান! সে যাই হোক, জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের ক্রিকেটের বাইরের কার্যক্রমে সম্পৃক্ততা কিন্তু বাড়ছেই।

তামিম শোরুম উদ্বোধন করতে গেলেও তামিমকে সামলাতে হয়েছে ক্রিকেট নিয়ে প্রশ্ন। প্রধান ইস্যু, তার জাতীয় দলে ফেরা। তবে কৌশলী ওপেনার বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন প্রাসঙ্গিকতার অযুহাতে।

তামিম ইকবাল বলেন, ‘আমরা একটা শোরুম ওপেনিং করতে এসেছি, আমরা এটা নিয়েই থাকি।’

সম্প্রতি তামিম ইকবাল সমালোচিত হয়েছেন একটি বিজ্ঞাপনের ফোনালাপ ফাঁস ইস্যুতে। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন, দর্শকদের আবেগ পুঁজি করে এই বিজ্ঞাপন করেছেন তিনি। যে বিষয়টি এদিন পরিষ্কার করেছেন খান সাহেব।

বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক তামিম বলেন, ‘বিজ্ঞাপনে বেশ কয়েকটা পরিবার জমি পাবে ঢাকা শহরে। আমি কিন্তু পাবো না। এটা তাদের জন্যই করা। যার প্রয়োজন সে যদি জমিটা পায় তবে আমি খুশি হব। এটার জন্য যদি আমাকে দুইটা বকাও শুনতে হয়, তা আমি শুনতে রাজি। যদি কয়েকটা মানুষ যদি আমার এই বিজ্ঞপনের দ্বারা উপকৃত হয় আমি তাতেই খুশি।’

তামিম ফেনী আসার সংবাদে ভক্ত সমাগম হয় সেখানে প্রচুর। তবে সময় স্বল্পতার অযুহাতে তাদের সঙ্গে ছিলো না কোন আনুষ্ঠানিকতা। এদিকে তামিমের সঙ্গে ছিলেন শোরুম উদ্বোধনে ছিলেন জাতীয় দলের আরেক ক্রিকেটার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।